Home / রূপচর্চা / সৌন্দর্যচর্চায় লেবুর অসাধারণ কিছু ব্যবহার জেনে নিন

সৌন্দর্যচর্চায় লেবুর অসাধারণ কিছু ব্যবহার জেনে নিন

আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজ আপনাদের মাঝে অরেকটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম। আজ আপনাদের জানাবো সৌন্দর্যচর্চায় লেবুর(Lemon) অসাধারণ কিছু ব্যবহার সম্পর্কে। ভিটামিন সি(Vitamin C) ভরপুর টক স্বাদের লেবু, খাবারে বাড়তি স্বাদ যোগ করে। তাতে কোনো সন্দেহ নেই। আবার এই সাধারণ লেবু শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা(Immunity) বৃদ্ধির পাশাপাশি তারুণ্য ধরে রাখতেও সাহায্য করে। স্বাস্থ্য ও রূপচর্চাবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে লেবুর কিছু দারুণ গুণাবলী উল্লেখ করা হয়।সৌন্দর্যচর্চায় লেবু

সৌন্দর্যচর্চায় লেবুর অসাধারণ কিছু ব্যবহার জেনে নিন

ভিটামিন সি ছাড়াও লেবুতে আছে ক্যালসিয়াম(Calcium) এবং ম্যাগনেসিয়াম। যা হাড়ের গঠনে অত্যন্ত জরুরি। আর যারা ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে চান, তাদের খাবারের তালিকার জন্য লেবু অত্যন্ত উপকারী একটি খাবার। শুধু স্বাস্থ্যগুণ নয় রূপচর্চার ক্ষেত্রেও লেবুর(Lemon) ব্যবহার অতুলনীয়। ত্বক(Skin) টানটান করে ত্বকে উজ্জ্বলতা আনতে জুরি নেই লেবুর।

– ব্রণের সমস্যা দূর করতে লেবুর জুরি নেই। সমস্যায় আক্রান্ত ত্বকের উপর এক টুকরা লেবু ঘষে নিলে তা ব্রণ(Acne) শুকিয়ে যেতে সাহায্য করে। লেবুর ভিটামিন সি’তে রয়েছে অ্যান্টিমাইক্রোবাইয়াল এবং হিলিং প্রোপার্টিজ। যা ত্বক(Skin) সুস্থ করতে সাহায্য করে। ত্বকে লেবুর রস(Lemon juice) লাগিয়ে পাঁচ থেকে ১০ মিনিট অপেক্ষা করে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

– ত্বকে ব্রণের দাগের উপর লেবুর রস(Lemon juice) ব্যবহারে দাগ হালকা হয়। লেবুতে রয়েছে সিট্রিক অ্যাসিড যা ত্বক(Skin) ব্লিচ করতে সাহায্য করে। তাই লেবুর রস ত্বকের অবাঞ্ছিত দাগ দূর হতে সাহায্য করে।

– অতিরিক্ত তৈলাক্ত ত্বকের(Oily skin) জন্যও লেবু উপকারী। ঘুমাতে যাওয়ার আগে তুলায় লেবুর রসে লাগিয়ে ত্বকে ঘষে নিতে হবে। সারা রাত লেবুর রস ত্বকের অতিরিক্ত তেল দূর করতে সাহায্য করবে। সকালে পরিষ্কার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে।

– তাজা লেবুর রস(Lemon juice) ঠোঁটে হালকা হাতে ম্যাসাজ করলে ঠোঁটের মৃত কোষ দূর হবে এবং ঠোঁট সুন্দর হবে।

– দাঁত ঝকঝকে করতে খানিকটা বেকিং সোডার সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস(Lemon juice) মিশিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে। এই মিশ্রণ পরিষ্কার তুলার সাহায্যে দাঁতে লাগাতে হবে। এক মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেললেই দাঁতের হলদেভাব কমে আসবে।

– ভঙ্গুর নখের জন্যও দারুণ উপকারী লেবু। অলিভ অয়েলের(olive oil) সঙ্গে খানিকটা লেবুর রস মিশিয়ে নখে মালিশ করতে হবে। এই মিশ্রণ নখ মজবুত করে এবং নখ হলদে হওয়া থেকে বাঁচায়।

– অলিভ অয়েল, লেবুর রস, মধু(Honey) এবং নারিকেল তেলের মিশ্রণ মাথার ত্বকে মালিশ করলে খুশকি দূর হয় এবং রুক্ষ চুলের সমস্যা থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়।

– টক দইয়ের সঙ্গে লেবুর রস, ত্বক(Skin) পরিষ্কারে দারুণ প্রাকৃতিক পরিষ্কারক হিসেবে কাজ করে। চাইলে এই মিশ্রণের সঙ্গে ল্যাভেন্ডার বা জেসমিন বা ক্যামোমাইন এসেনশিয়াল তেলও মিশিয়ে নেওয়া যেতে পারে।

– চুল হাইলাইট করতেও লেবু কার্যকর। শুনতে অবাক লাগলেও সত্যি। কন্ডিশনারের সঙ্গে লেবুর রস(Lemon juice) মিশিয়ে চুলের যে অংশ হাইলাইট করতে চান সেখানে লাগাতে হবে। এরপর কিছুক্ষণ রোদে বসে অপেক্ষা করতে হবে। কয়েক মিনিট অপেক্ষার পর ধুয়ে ফেলতে হবে। ভালো ফলাফল পেতে সপ্তাহে এক দিন নিয়ম করে এই মিশ্রণ ব্যবহার করতে হবে।

সুস্থ থাকুন, নিজেকে এবং পরিবারকে ভালোবাসুন। আমাদের লেখা আপনার কেমন লাগছে ও আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে জানান। আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে দয়া করে শেয়ার করুন। পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

Check Also

কনসিলার

জেনে নিন দারুণ ১৫টি কনসিলার ট্রিকস

আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজ আপনাদের মাঝে অরেকটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম। আজ আপনাদের ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *