Home / বিউটি টিপস / চোখের পাতা লম্বা ও ঘন করার ঘরোয়া ৬টি উপায়

চোখের পাতা লম্বা ও ঘন করার ঘরোয়া ৬টি উপায়

মানুষের সৌন্দর্যের মূলে আকর্ষণীয় মুখাবয়ব। নাক, ঠোঁট(Lip), চোখ ব্রু—এসব মুখের সৌন্দর্য বাড়ায়। আর চোখের সৌন্দর্যের মূলে পাতা। ঘন, কালো ও লম্বা চোখের পাতা কে না চায়? ঘন ও লম্বা চোখের পাতা সাধারণত সবার হয় না। চোখের সৌন্দর্য(Eye Beauty) বাড়াতে অনেকে ব্যবহার করে থাকেন নকল চোখের পাতা। কিন্তু কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি অবলম্বন করে সহজেই মিলতে পারে ঘন, কালো ও লম্বা চোখের পাতা।চোখের পাতা

চোখের পাতা লম্বা ও ঘন করার ঘরোয়া ৬টি উপায়

১. অলিভ অয়েল: ত্বকের যত্নে বহুল ব্যবহৃত উপাদান হিসেবে ব্যবহার হয় অলিভ অয়েল(Olive oil)। প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে মাশকারা ব্রাশে করে চোখের পাতায় অলিভ ওয়েল লাগালে মিলবে অনেক সুফল, মিলবে ঘন ও লম্বা চোখের পাতা।

২. ক্যাস্টর অয়েল: চোখের পাতা ঘন করতে অনেক উপকারী ক্যাস্টর অয়েল(Castor oil)। এতে রয়েছে ভিটামিন, প্রোটিন ও ওমেগা-৬ ফ্যাট, যা চোখের পাতা বৃদ্ধি করতে কার্যকরী। এটি চোখের পাতা অনেক দ্রুত লম্বা ও ঘন করতে পারে। রাতে ঘুমানোর আগে চোখের পাতায় হালকা গরম করা ক্যাস্টর অয়েল তুলার সাহায্যে লাগালে মিলবে উপকার। এর সঙ্গে অলিভ অয়েল মিশিয়ে চোখের পাতায় লাগাতে মিলতে পারে আরও ভালো সুফল।

৩. অ্যালোভেরা: মাশকারা ব্রাশের মাধ্যমে অ্যালোভেরা জেল চোখের পাতায় সারারাত লাগিয়ে রাখতে হবে। হালকা গরম ও ঠাণ্ডা পানি মিশিয়ে সকালে ধুয়ে ফেললে মিলবে ভালো ফল। এ ছাড়া এক চা চামচ অ্যালোভেরা জলের সঙ্গে এক চামচ জোজোবা অয়েল ও দুই ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল(Essential Oil) মিশিয়ে প্রতিদিন দুবার লাগাতে পারেন। এটি ১০-১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেললে মিলবে উপকার।

৪. পেট্রোলিয়াম জেলি: মাশকারা ব্রাশের মাধ্যমে চোখের পাতায় পেট্রোলিয়াম জেলি(Petroleum jelly) সারারাত লাগিয়ে রাখলেও মিলবে ভালো ফল। সকালে হালকা গরম ও ঠাণ্ডা পানি মিশিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

৫. ম্যাসাজ: অলিভ অয়েল বা নারিকেল তেল(Coconut oil) কয়েক ফোঁটা নিয়ে আঙুলের সাহায্যে চোখের পাতা ও চোখের চারপাশে ধীরে ধীরে কিছুক্ষণ ম্যাসাজ করলে মিলতে পারে ঘন ও লম্বা চোখের পাতা।

৬. ডিম: ডিমের সাদা অংশের সঙ্গে এক চা চামচ গ্লিসারিন(Glycerin) মিশিয়ে ঘন প্যাক তৈরি করতে হবে। ইয়ার বাডের সাহায্যে প্যাকটি চোখের পাপড়িতে লাগিয়ে তা ১০-১৫ মিনিট রেখে পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিলেই পাওয়া যাবে উপকার।

সুস্থ থাকুন, নিজেকে এবং পরিবারকে ভালোবাসুন। আমাদের লেখা আপনার কেমন লাগছে ও আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে জানান। আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে দয়া করে শেয়ার করুন। পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

Check Also

মেকআপ

ড্রাই ও ডিহাইড্রেটেড স্কিনের জন্য মেকআপ গাইডলাইন

যাদের স্কিন(Skin) টাইপ ড্রাই এবং স্কিনটা বেশ ডিহাইড্রেটেড, তারাই জানে মেকআপ পারফেক্টলি সেট রাখাটা তাদের ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *