Home / চুলের যত্ন / শুষ্ক চুল মসৃণ হবে যে ৫টি স্প্রে ব্যবহারে

শুষ্ক চুল মসৃণ হবে যে ৫টি স্প্রে ব্যবহারে

রুক্ষ ও শুষ্ক চুল যেমন নিষ্প্রাণ দেখায়, তেমনি আঁচড়াতে গেলে ছিঁড়েও যায় খুব সহজে। এ ধরনের চুল (Hair) ঝলমলে এবং মসৃণ করতে পারেন প্রাকৃতিকভাবে। এজন্য ঘরেই বানিয়ে নিন কিছু স্প্রে। জেনে নিন জটধরা চুলে কোন কোন স্প্রে ব্যবহার করবেন।চুল

শুষ্ক চুল মসৃণ হবে যে ৫টি স্প্রে ব্যবহারে

১। নারকেলের দুধ এবং অ্যালোভেরা হেয়ার স্প্রে (Hair spray) বানিয়ে নিন। এজন্য একটি স্প্রে বোতলে আধা কাপ নারকেলের দুধ এবং ২ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল একসাথে মেশান। মিশ্রণটি স্প্রে করুন ভেজা চুলে। এরপর চুল বাতাসে শুকিয়ে নিন। এই হেয়ার স্প্রেটি ময়েশ্চারাইজিং বৈশিষ্ট্য সমৃদ্ধ, যা চুলকে নরম ও মোলায়েম করবেন।

২। একটি বোতলে ১/৪ কাপ আপেল সিডার ভিনেগার ও ১ কাপ পানি একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। চুল শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার (Conditioner) করার পরে মিশ্রণটি চুল এবং মাথার ত্বকে স্প্রে করুন। মাথার ত্বক কয়েক মিনিটের জন্য ম্যাসাজ করুন, তারপরে পানি দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন। আপেল সিডার ভিনেগার চুলের পিএইচ স্তরের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে এবং চুল উজ্জ্বল করে। চুলকে সতেজ এবং পুনরুজ্জীবিত করতেও সাহায্য করবে এই স্প্রে।

৩। আর্গান তেল এবং ল্যাভেন্ডার স্প্রে বানিয়ে নিন ঝটপট। একটি স্প্রে বোতলে ১ কাপ পানির সঙ্গে ১ টেবিল চামচ আর্গান তেল মেশান। কয়েক ফোঁটা ল্যাভেন্ডার অয়েল (Lavender oil) মিশিয়ে ঝাঁকিয়ে নিন। ভেজা বা শুকনা চুলে স্প্রে করুন। আর্গান তেল ভিটামিন এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ যা চুলকে পুষ্টি জোগায় এবং হাইড্রেট করে, অন্যদিকে ল্যাভেন্ডার তেল মাথার ত্বককে প্রশমিত করে।

৪। ফ্ল্যাক্সসিড নিন ১/৪ কাপ। ২ কাপ পানিতে সেদ্ধ করুন। পাতলা কাপড়ের সাহায্যে মিশ্রণটি ছেঁকে নিন, তারপরে ঠান্ডা করুন। জেলটি একটি স্প্রে বোতলে ঢেলে রেফ্রিজারেটরে সংরক্ষণ করুন। চুলে স্টাইল করার আগে জেলটি ভেজা চুলে স্প্রে করুন। ফ্ল্যাক্সসিডে ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে, যা চুলের স্ট্র্যান্ডগুলোকে পুষ্ট এবং শক্তিশালী করতে সহায়তা করে।

৫। একটি স্প্রে বোতলে গোলাপজল (Rosewater) এবং গ্লিসারিনের সমান অংশ একসাথে মিশিয়ে নিন। আপনার চুলকে রিফ্রেশ এবং হাইড্রেট করার জন্য শুষ্ক চুলে মিশ্রণটি স্প্রে করুন। গোলাপজলে রয়েছে প্রশান্তিদায়ক এবং হাইড্রেটিং বৈশিষ্ট্য, অন্যদিকে গ্লিসারিন নরম এবং মসৃণ রাখে চুল।

সুস্থ থাকুন, নিজেকে এবং পরিবারকে ভালোবাসুন। আমাদের লেখা আপনার কাছে কেমন লেগেছে এবং আপনার যদি কোনো প্রশ্ন অথবা মতামত থেকে থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। আর আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে শেয়ার করুন। সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

Check Also

চুলের আগা ফাটা

চুলের আগা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায় জেনে নিন

চুলের আগা ফাটার সমস্যা দূর করার জন্য বেশিরভাগই চুল (Hair) কেটে ফেলেন। সাধারণত নারীর চুল ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *