Home / স্বাস্থ্য টিপস / ওষুধ ছাড়াই অ্যাসিডিটি কমানোর ‍ঘরোয়া উপায়

ওষুধ ছাড়াই অ্যাসিডিটি কমানোর ‍ঘরোয়া উপায়

গ্যাস্ট্রিক বা অ্যাসিডিটির (Acidity) সমস্যায় ভোগেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়াই কঠিন। সব বয়সীদেরই এই সমস্যাটি রয়েছে। এই সমস্যা থেকে রেহাই পেতে অনেকেই ওষুধ খান। তবে ওষুধ ছাড়াই ভালো থাকার উপায় রয়েছে। জানুন অ্যাসিডিটি কমানোর ঘরোয়া টোটকা।অ্যাসিডিটি

ওষুধ ছাড়াই অ্যাসিডিটি কমানোর ‍ঘরোয়া উপায়

১। অ্যাসিডিটি কমায় মৌরি
মৌরিতে রয়েছে অ্যানিথোল নামক একটি এনজাইম। আর এই উপাদান অ্যাসিডিটি (Acidity) কমানোর কাজে সিদ্ধহস্ত। এমনকি নিয়মিত এই ভেষজ খেলে বাড়বে হজমশক্তিও। তাই ছোট্ট সোনার ভালো চাইলে তাকে রোজ সকালে অল্প পরিমাণে মৌরি খান।

২। অ্যাপেল সিডার ভিনিগার
পাকস্থলীর পিএইচ ব্যালেন্স বজায় রাখার কাজে একাই একশো অ্যাপেল সিডার ভিনিগার। আর দেহে পিএইচ ব্যালেন্স ফিরলে যে অচিরেই কমবে গ্যাস-অ্যাসিডিটির প্রকোপ, তা তো বলাই বাহুল্য! সুতরাং এবার থেকে টক ঢেকুরের খপ্পরে পড়লেই এক গ্লাস পানিতে কিছুটা পরিমাণে অ্যাপেল সিডার ভিনিগার (Apple cider vinegar) মিশিয়ে পান করুন। উপকার পাবেন হাতেনাতে।

৩। আদা খেলেই হবে মুশকিল আসান​
এই ভেষজতে রয়েছে জিজ্ঞেরল নামক একটি উপাদান যা কিনা গ্যাস-অ্যাসিডিটির প্রকোপ কমানোর কাজে সিদ্ধহস্ত। এমনকি এই ভেষজের গুণে বমি এবং বমি বমি ভাবের মতো সমস্যাকেও সহজেই মাত দেওয়া সম্ভব।

৪। জোয়ানে ভরসা রাখুন
যুগের পর যুগ ধরে অ্যাসিডিটি (Acidity) দূর করার কাজে ব্যবহৃৎ হয়ে এসেছে জোয়ান। তাই কেউ অ্যাসিডিটিতে ভুগলে তাকে এক চামচ জোয়ান খাইয়ে দিতেই পারেন। তাতেই কাজ হবে। কিছুক্ষণের মধ্যেই কমে যাবে সমস্যা।

৫। পর্যাপ্ত পানি পান করুন​
শরীরে পানির ঘাটতি থাকলে অ্যাসিডিটির ফাঁদে পড়ার আশঙ্কা বাড়ে। তাই কিছু সময় পর পর পানি (Water) পান করুন।

সুস্থ থাকুন, নিজেকে এবং পরিবারকে ভালোবাসুন। আমাদের লেখা আপনার কাছে কেমন লেগেছে এবং আপনার যদি কোনো প্রশ্ন অথবা মতামত থেকে থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। আর আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে শেয়ার করুন। সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

Check Also

উচ্ছে

গরমে উচ্ছে খেলে পাবেন যেসব উপকার

দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সীমান্তবর্তী জেলা চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে টানা তীব্র তাপপ্রবাহ (Heat wave) বয়ে যাচ্ছে। একইসঙ্গে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *